আমারে ভোলালে // বিশ্বনাথ পাল

1

কাজল কাল মেঘের আঁচল ছুঁয়ে

চুঁয়ে পড়ে বৃষ্টি নিরাভরণ মাটির বুকে

সততার মুখোশ আঁটা মানুষ,

অন্তিম বাসনায় তুখোড় শুধু বাই ঠোকে।

কাঠঠোকরা পাখি ও যে মজা পায়

কাঠ ঠুকে। বান্দার তালিম হয়ে

রসাল মজলিশে যে রঙ হয় না ফিকে

তার দাম কানাকড়ি নাকি পাঁচ সিকে?

কে বোঝাবে তার বিবেককে। অতএব

হও সাবধান, খুলে রাখো কান

বিপন্ন বৈশাখে, যে কথা চেপে রেখে

মন ভরে আহ্লাদে, যে দস্যু প্রহ্লাদে

করে নি ক্ষমা। তাঁর জন্য রক্তজবা

শুকায়। গভীর হৃদয়ের প্রতীতি দানা বাঁধে

নিজস্ব ক্যানভাসে আপন সত্ত্বায়। অস্থি-মজ্জায়

হৃদয়ের বারান্দা হুড খোলা জিপ তো নয়

তবে কেন এত অপচয় নিষাদে বিষাদ বড়

শান্তিতে মন দড় – – – এই কি বিলাপ। বসন্তে

বিলাপ ভাল নিদ্রাহীন ইন্দ্রাণীর চোখে।

ডান কি ভান করে আপন পাপের ফল

হৃদয়ের সম্বল করে চেখে চেখে দ্যাখে?

শান্তির সান্ত্বনা যেখানে আনে না অনল

ক্ষমা হীন যন্ত্রণা কেন অনর্গল দ্রিমি দ্রিমি

তালে আপন আনন্দ গানে  আমারে ভোলালে।

Facebook Comments

Published by Story And Article

Word Finder

Leave a Reply

%d bloggers like this: