আয়না — :অর্পিতা মুখার্জী ।

আয়না  --  :অর্পিতা মুখার্জী ।

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সব কিছুরই পরিবর্তন হয়।প্রকৃতিমানুষ,পরিস্থিতি সব কিছু।
একবার এক জোৎস্না রাতে দেখা এক বৃদ্ধার সাথে..পাহাড় দেশে।দীপ্তিময় নক্ষত্রের মৃদু আলোয় নৈঃশব্দে এলো সে..ডাকলো আমায় করুন গলায়..ফিরে তাকাইনি পিছনে,একমুহূর্তে কোথাও যেন এই অন্ধকারের একাকিত্বে মোড়া হৃদয়ে একমুঠো আলো খুঁজে পেলাম।এক দৃষ্টিতে মাটিতে পড়ে থাকা শুকনো পাতার দিকে চেয়ে বললামতুমি এসেছো!!!
তখনই সে গর্জে উঠে বললোনিজ কক্ষপথে আকাশ প্রদীপ জ্বালো।ভুলে যাও কি তোমার অতীত,কি তোমার বর্তমান,ভবিষ্যতের পূজারী হও।আমি বললামউদাসী দুপুরের মৃত বক্ষ্যে ফুটে ওঠা সেই সৃষ্টিসুখকে ভুলতে চাইলেই কি ভোলা যায়!
সে বললোসেই সৃষ্টিসুখের স্রষ্টা যদি তোমায় নিষ্প্রাণ ভেবে চলতে পারে,তাহলে তুমি কেন পারবে না মরণখুনি?
আমি বিস্ময়ের সাথে বলে উঠলামমরণখুনি!!আমি তো নিজেই নিজেকে মৃত্যুর শীতলতায় হারিয়ে ফেলার মূঢ়তা করে থাকি।
সে বললএটা তোমার মূঢ়তা নয়..’হতাশা উদ্রেককারী দুর্বলতা যেখানে তুমি তোমার তুমিকে হারিয়ে ফেলার অসম্ভব ভীতির মধ্যে জড়িয়ে রাখো।কিন্তু তোমার মধ্যে থাকা অদম্য দৃঢ়তা,কঠোর একনিষ্ঠতা এগুলোই তোমার পরবর্তী জীবনের পাথেয়।তুমি তো এখনো সপ্তর্ষিমন্ডলের মতো উজ্জ্বল।কিছুক্ষণ নীরব থাকার পর বড্ড আদরমাখা গলায় সে বলে উঠলোতোমার মধ্যে যে আমার সৃষ্টি,আমায় তুমি ভালোবাসবেনা?তোমার ভেতরে থাকা আমিকে,তোমার অন্তরাত্মাকে।
বড্ড অবাক দৃষ্টিতে পেছন ফিরে দেখলাম তার দিকে..সে বলে উঠলো আমি হলাম সুদূর নীহারিকার এক অসমাপ্ত ছায়াছবি।সঙ্গে সঙ্গে বৃষ্টি এলো।অশ্রুজলে পরিপূর্ণ হলো আমার নয়নদ্বার।
  স্তব্ধ..স্তব্ধ..স্তব্ধ আমি এখনো……

ফেসবুক মন্তব্য

Published by Story And Article

Word Finder

Leave a Reply

%d bloggers like this: