ও তো মেয়ে // ইন্দ্রজিৎ দত্ত

fddddddd

.

.

.

মেয়ে আমার বড়ো হলো, দেখতে এলো পাত্র, দেনার দায়ে জড়িয়ে গেলোও                                                 মা বাবা তো হবু জামাই এর ভক্ত,         মেয়ের আমার বিয়ে হলো                       খুশি তে হলো বিদায়,                            জামাই বাবাজি দেখো মেয়েটা আমার কষ্ট জানো না পাই.

শাশুড়ি সেতো মাথার কেসে ঘষলো জামাইয়ের  পা, বিদায় কালে বললো বাবা ওকে কাদিও না.

.

.

তোমার জন্য  মেয়েদের পড়তে হবে তোমার নামের  সিঁদুর, পড়তে হবে শাখা

ভালোবাসা দিতে হবে রাতে

শরীর যতই হোক না কাচা, বাচ্চা আমার চায় ছেলে,

মেয়ে হলে করবো না বন্দ

অসুস্থ শরীরেরও নির্যাতন,

কারণ তোমার আমার সবার চাহিদা

পূরণ করবার তুমিই তো আপনজন.

.

.

কেও হলো সমাজের খারাপ মেয়ে

রইলো না তার সংসার

বুঝলোনা কেও তার কষ্ট. করলোনা কেও  শত ব্যবহার.

.

.

অল্প বয়সের বিধবা

  ওই দেখ

মাল টা তো ছিল খাসা

আমার তোর মিটবে চল,                  যৌবনএর দুর্দশা

মেয়েটা তো” সতী”পারলাম না তাকে ছুঁতে

“পেছন ফিরে তাকাই যখন  মায়ের চোখ ভাসে “

        “ও তো মেয়ে “

.

.

.

.

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *