চড়কতলা ফাঁকা –– সুমিত মোদক

চড়কতলা ফাঁকা –– সুমিত মোদক
আমার চড়ক-গাছ একা ;
আমার চড়কতলা ফাঁকা …
প্রতিদিনের মতো আজও ভেসে আছে 
খালের জলে , চড়ক-গাছটা ;
অথচ , বাংলা বছরের এই শেষ দিনটিতে 
গ্রামের কিছু মানুষ মিলে তুলে নিয়ে গিয়ে 
মাটিতে পুঁতে দাঁড় করিয়ে দিতো
চড়ক মাঠের মাঝ বরাবর ;
তার পর তার মাথার উপর একটা বাঁশ বেঁধে
তৈরি করতো চড়ক ;
আমাদের চড়ক …
আর বাঁশের দু প্রান্তে দড়ি বেঁধে দুজন বনবন করে ঘুরতো ;
দুজন নেমে এলে আবার দুজন …
সেই ছোটবেলা থেকে দেখে আসছি 
একই প্রথা মেনে চড়ক মেলা ;
আমাদের চড়ক মেলা …
আমার চড়ক-গাছ একা ;
আমার চড়কতলা ফাঁকা …
আজ বাংলা দিনলিপির শেষ দিন ;
আজ চড়ক পূজা , চড়ক মেলা ,
আমার পাড়া-গাঁয়ে , আমাদের পাড়া-গাঁয়ে ;
কিন্তু , আশেপাশে একজনও মানুষ নেই ;
সকলেই যে এখন গৃহবন্দী ;
মহামারির ভয় গৃহবন্দী করে রেখেছে 
মানব জাতিকে ;
মানুষ যে এখন বড় নিরুপায় 
এ সময়ের কাছে ,
এ বিষাক্ত জীবাণুর কাছে ;
হঠাৎ থমকে গিয়েছে একটা সময়ের গতি ;
থমকে গিয়েছে চড়কের গতি ,
কর্ষনের গতি , শস্য ছড়ানোর গতি ,
একটা সভ্যতার গতি ;
আমার চড়ক-গাছ একা ;
আমার চড়কতলা ফাঁকা …
এ বছরও তোমার সঙ্গে দেখা হওয়ার কথা ছিল 
চড়ক মাঠে , চড়ক মেলায় ;
সেই ছেলেবেলার মতো কলা পাতায় 
তালপাতার চামচ দিয়ে ঘুগনি কিনে খাওয়া
মাঠের আলে বসে ;
এ বছর সে আর হল না !
সামনের বছর নিশ্চিত হবে ;
এ যুদ্ধে যে জিততেই হবে ;
বাঁচতে হবে , 
বাঁচাতে হবে সমগ্র মানব জাতিকে ;
গতি যে আমাদের ফিরবেই ;
সভ্যতার গতি , মানব জাতির গতি ,
আমাদের চড়কের গতি ;
আমাদের চড়ক-গাছ একা ;
আমাদের চড়কতলা ফাঁকা …
ফেসবুক মন্তব্য

Published by Story And Article

Word Finder

Leave a Reply

%d bloggers like this: