জোর যার মুল্লুক তার – খাদিজা মুনিয়া

BSB

আমরা চার বোন।ছোট বেলা থেকে আমরা বাড়ির সবার অবহেলায় বড় হয়েছি।একটা সময় বাতাসে টিনের চাল উড়ে যেত।আমার আম্মু যুদ্ধ করে আমাদের শান্তি এনেছে,এ বাড়ির মানুষের সাথে।

.

আপন লোক গুলোই ছিল সবচাইতে বড় শত্রু এখন তা বহাল আছে।সংক্ষিপ্ত ভাবে বলে শেষ করছি।আমাদের বাড়ি দখলের জন্য মেয়র ভাগিনা উঠে পড়ে লেগেছে।

.
আমার আপন চাচারা আমাদের কম পরিমান হলে ঠকিয়েছে।গোলাপ এখন বাড়িতে গুন্ডা পাঠা কেউ যাতে কিছু বলতে না পারে।আজ এবং কাল রাতে তা হয়েছে।

.

কাল সকালে আব্বু পুকুর পাড় আর মসজিদের সামনে জায়গা দখলে বাদা দিলে মেয়র আব্বু গায়ে হাত তুলতে আসে।পুকুর আর মসজিদের জায়গা গুলো কিন্তু যৌথ।। এই জায়গা রাখতে শুধু আমার মুক্তিযোদ্ধা আব্বু যুদ্ধা করে যাচ্ছে।

.

কিন্তু উদ্ধারেরপর কেউ আববুকে এই জায়গা ভোগও করতে দিবে না। এর মধ্যে ফুফুরা বার বার বলছে আব্বুর জায়গা দখল করবে। সবারই এক কথা তোর তো মেয়ে তুই জায়গা দিয়ে কি করবি।

.

বাড়ির মধ্যে সবচেয়ে হিংসুক হচ্ছে চাচি আর চাচির পরিবার।আর ডাকাত খুনি বদমাইস, লুচ্চা হচ্ছে ভাইয়া আর আপুদের ফ্যামিলি। গুন্ডা পাঠানোর চক্রান্ততে তাদের হাত আছে। কারন ওনারা ২জনই ভাল পদ পাবেন এর বিনিময়।

.

ভয়ে রাতে আমাদের ঘুম হচ্ছে না।।।ওরা অনেক ক্ষমতাধর।
যে লোকটা ভাল করে নিজের নাম লিখতে জানে না সে মেয়র হয়ে নিরীহ মানুষের হাজার হাজার টাকা গুনছে।

.

ফেসবুক মন্তব্য

Published by Story And Article

Word Finder

Leave a Reply

%d bloggers like this: