নমামি গঙ্গে

নমামি গঙ্গে
———————–
অমিতাভ মুখোপাধ্যায়

গঙ্গা, মা আমার
আর কত ময়লা বুকে নিয়ে বেড়াবে তুমি
আর কত দূষিত শব বইবে তুমি
তোমাতে নিত্য স্নান করলে নাকি
সব পাপ ধুয়ে যায়
তুমি জন্মেও আছো, মরণেও আছো
তর্পণ থেকে বিসর্জন সবেতেই আছো তুমি
তবুও তোমার এই দৈন্যদশা কেন

একদা কালের ভগীরথ
মঙ্গল শঙ্খ বাজিয়ে
তোমাকে মর্তে এনেছিল
তোমার অমৃত সুধা পান করে তৃপ্ত
হয়েছিল মর্তভূমি
তৈরী হয়েছিল আবাদি জমি
শিল্প শহর
তোমার বহমান ধারায় ভিজে
প্রকৃতি হয়েছিল শস্য শ্যামলা
তোমা বিনা পূজা পার্বণ আজও অধরা

তুমি কোথাও নির্মল স্রোতধারা
কোথাও প্লাবন
তুমি কোথাও দেবী
কোথাও সর্বংসহা

আজ তোমার করুণ দশা
যারা নমামি গঙ্গের স্বপ্ন দেখিয়েছিলো
তারাই তোমার বুকে ফেলে দেয়
শত শত শব দেহ
নিত্য পূজার আবর্জনা
একদা অমৃত কুম্ভের সন্ধানে গিয়ে
তোমাতেই তৃপ্ত হতো পাপী -তাপী

আজ দূষিত সেই তুমি
উপেক্ষিতাও তুমি
তুমি এবার নিজেকে রক্ষা করো
যারা দূষিত করছে তোমার বুক
তাদের তুমি প্লাবিত করো
নয়তো ফল্গু ধারা হও

যেদিন চেতনা ফিরবে আমাদের
সেদিন কোনও পরশুরামের হাত ধরে
আবার ফিরে এসো –

এই মাটির পৃথিবীতে l

Leave a Comment

Your email address will not be published.