যে নেশায় রঙ তুলি — বিপত্তারণ মিশ্র

যে নেশায় রঙ তুলি --- বিপত্তারণ মিশ্র
জীবনের গাছ থেকে
আবার একটি পাতা 
 ঝরে গেলো আমার ।
 
                                     ডুবে গেলো
আজকের গোধূলির শীতল আলোয়।
             আজও আঁকতে পারিনি 
                         স্বপ্নের সেই ছবি — 
                 যে ছবি আঁকতে চেয়ে 
               অনেক দিন মাস বছরে
অতৃপ্তির রঙ ঢেলে দিয়েছি আমি।
 
বন্য খুশিতে মত্ত আমি 
    রঙ তুলি নিয়ে বসি
           সৃষ্টির আনন্দে।
        মা যেমন আত্মজের মুখ দেখে 
        সন্তানের জন্মদানের কষ্ট ভুলে 
                আহ্লাদে রিনিঝিনি বাজে — 
           তেমনি আমার সৃষ্টিকে দেখে 
                           আমি ও সুখ পাই, 
অনির্বচনীয় সৃষ্টি সুখের গন্ধ ছড়ায়।
 
                  তবু তারপর অতৃপ্তি 
                গুরি মেরে উঁকি দেয় 
আমার সত্তার কোনায় কোনায়।
 
             দেখি আজও আঁকতে পারিনি 
                                             সেই ছবি 
                     যে আমায় জরিয়ে আছে 
ক্যানভাসে ফুটে ওঠার প্রবল প্রতীক্ষায়।
 
                                 আমি আকুলি বিকুলি 
                                     বোবা কান্নায় ভাসি
তাকে পৃথিবীর আলো দেখাতে পারিনি বলে।
 
          আমার গাছের পাতা 
                  ঝরেছে অনেক —
      আরও পাতা ঝরে যাক 
পথ চাওয়া ফুরোবে না তবু। 
                      
               জীবনের শেষ হৈমন্তী হাওয়ায়
                         শেষ পাতা ঝরার আগে — 
                   ক্যানভাসে হাসবে সেই ছবি
                              সে আমার শ্রেষ্ঠ সুখ 
সময়ের হাতে সেই মৃত্যুহীন অর্ঘ্য আমার।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *