রাকিবুল ইসলাম – বগুড়া, রাজশাহী, বাংলাদেশ।



প্রিয়,
ভালো আছো? তুমি আমার মতোই স্বার্থপর, জানি আমার মতো তুমিও ভালো আছো।( অভিনয়ে)। 
একটা সম্পর্কে যখন হারিয়ে যায়  তখন সেখানে ভালোবাসার গভীরতাটা থাকে অনেক বেশি। আমরা দুজন দুজনকে হারাবো না,এমনই একটা ভুল ধারণাশক্তি প্রখররূপ নিয়েছিলো আমাদের মনের অন্দরে। সেই ভুল ধারণা ভেঙ্গেচুরে আমরা আলাদা। সান্তনা হলো সব ভালোবাসার সমাপ্তিটা সুখের হয় না।
ভালোবাসাটা আসলে কি? হাজারো দূরত্বের মাঝেও যার কথা ভাবলে বুকের বাম পাশটা কেপে উঠে এর নামকি ভালোবাসা? তবে তোমায় আমি এখনো ভালোবাসি।
আপোষ ও সমঝোতা নাকি জীবনকে সুন্দর করে তুলে।আমরা আজ আমাদের নিজেদের ইগু,নিজেদের জেদের সাথে পর্যন্ত সমঝোতায় আসতে পারলাম না।
 তুমি প্রায়ই বলতে আমাদের ভালোবাসাটা অদ্ভুত,আসলেই অদ্ভুত। সবার থেকে আলাদা সে ভালোবাসা, যার ফলশ্রুতিতে আজ আমাদের পথ ভিন্ন।
আমি শুধু তোমাতেই আসক্ত থাকতে চেয়েছিলাম। তোমার ঠোটের এলকোহল মিশানো উষ্ম ছোঁয়ায় মাদকাসক্ত হতে চেয়েছিলাম। ভাবিনি লেবুপানি মেশানো থাকবে তাতে। 
ভালোবাসার মোহ শেষ হতে পারে কিন্তু ভালোবাসার অনুভুতি গুলো কি শেষ হয়? হয় না। তোমাকে ঘিরে আমার স্মৃতি গুলো কখনো মুছবার নয়। জানি আমাকেও তুমি ভুলতে পারবে না।ছেড়ে থাকা আর ভুলে থাকার মধ্যে বিস্তর তফাৎ।
জানো,প্রিয় ,কিছু কষ্টের ওজন অনেক ভারি,না যায় সহ্য করা না যায় কাউকে বলা।কিন্তু কষ্ট গুলো একটা গুন আছে,মিথ্যে হাসি শিখানোর গুন।সব কষ্ট যে মনকে পাথর বানিয়ে তুলে এমনটি নয়।
জীবনটাই তো সংকীর্ণ, তাই এই সংকীর্ণ জীবনের ভালোবাসা গুলো নিশ্চয় প্রশস্ত নয়। সেই সংকীর্ণ ভালোবাসায় নিজেকে আর জড়াবো না। ভালোবাসা নামক বস্তুটাকে ঘৃণা করার চেষ্টা করবো।
চিঠিটা দেখে আমি কেমন আছি জানার ইচ্ছা জাগতেই পারে,উত্তর; বেঁচে আছি,,ভালো থাকাটা কি খুব জরুরি?
ছোট্ট চিঠিতে শেষ বারের  মতো বলি “ভালোবাসি” এখন ও তোমাকে।  
______________ইতি_______________
তোমার কোন এক সময়ের প্রিয় মানুষ। 
লেখকঃ
রাকিবুল ইসলাম
বগুড়া, রাজশাহী, বাংলাদেশ।    

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *