লক্ষ্মীকান্ত মণ্ডলের কাব্য আলোচনা // আলোচক : তৈমুর খান

https://www.sahityalok.com/

হরিত প্রাণের কম্পন শুনতে পাই


কাব্যটির নাম “হরিত প্রাণের কম্পন”(২০১৮), কবির নাম লক্ষ্মীকান্ত মণ্ডল। বাংলা কবিতার পাঠক এই কবিকে চেনেন। তাঁর কবিতার ঘরানা সম্পর্কেও ধারণা থাকতে পারে। তাঁর কবিতা গদ্যে লেখা। বর্ণনার সঙ্গে সংকেত ব্যবহারেরও চমৎকার দৃষ্টান্ত তৈরি হয়েছে। দৃশ্যজগৎ এবং শ্রবণেন্দ্রিয় একই সঙ্গে সজাগ হয়ে ওঠে। “হরিত প্রাণের কম্পন” কাব্যের ২৩ টি কবিতায় মুগ্ধ হয়ে যেতে হয় কবির স্বচ্ছন্দ গতিময় ক্রিয়ার অবগাহনে ।



লক্ষ্মীকান্ত মণ্ডলের কবিতা প্রকৃতির ডায়েরির মতো সূক্ষ্ম গভীর এবং বহুরৈখিক বিন্যাসে সমান্তরাল। আত্মমগ্ন পথের কবি নিজেই উপলব্ধি করেছেন : “অনন্ত পিপাসার ঘ্রাণে শুয়ে থাকি আমিও”। “ঘ্রাণ” শব্দটি সদর্থক বিশ্বাস ও জীবনবাদী প্রক্রিয়ায় নিষিক্ত স্বপ্নস্বাদ। সমস্ত শূন্যতা বা নঞর্থক চেতনাকে দূরে ঠেলে কবি জানিয়ে দেন :
“পাতা ঝরা নিয়ে কথা হয় সামান্যই। বেশিরভাগই নিজের বুকে কাটা দাগ ;”
অর্থাৎ কবিও প্রকৃতি। আকাঙ্ক্ষার পাতা ঝরলেও বুকের ক্ষতই বড়ো হয়ে ওঠে। তবে সেই ক্ষতও চিহ্ন। কায়াগন্ধ আত্মহত্যাকেও থামিয়ে দেয়। “শুভ মুক্তির” অন্তরালে কবির প্রতীতি “সকাল এসে জড়িয়ে ধরছে সুগন্ধকে।” ধোঁয়াশা থেকে ছায়া খুঁজে নিতে “একতারা বাজায় ঝরাপাতার কাঁপনগুলি ।” তখন কবির বোধে নির্ণীত হয় :
“ব্যথা উড়ছে নিঝুম একাকিত্বে”
ডালপালাগুলি ভোরের কাকলির দিকে ধেয়ে যাচ্ছে। প্রাণের মহিমায় তিনটি জিনিস খুবই প্রয়োজন। আমেরিকান লেখক হেনরি জেমস্ (Henry James) বলেছেন :“Three things in human life are important. The first is to be kind. The second is to be kind. And the third is to be kind.” এই “Kind” লক্ষ্মীকান্ত মণ্ডলের কবিতায় প্রত্ন জীবন থেকে, ব্যবহারিক জীবন থেকে এবং ভবিষ্যতের স্বপ্নময় জীবন থেকে পূর্ণ করেছে।
তাই তাঁর কবিতাগুলি সম্পূর্ণ গদ্যের চালে বক্তব্যের ভেতর নান্দনিক যাচনাতেই বেশি স্বচ্ছন্দ। বোধ সচল বলেই ব্রহ্মসত্তার বহুমুখ ও গুণিতক এক আলোকসাম্যে জেগে উঠেছে। সচল চিত্রগুলি মেটাফোরিক প্রশ্রয়ে ক্রিয়া সম্পন্ন করেছে। অনুভূতির জগৎ থেকে দৃশ্যের জগতে সহজেই পদার্পণ করেছে । ব্যাপ্তি ও খণ্ডকে, সজাগ ও মগ্নকে এবং ব্যক্তি ও নৈর্ব্যক্তিককে একই পর্যবেক্ষণে মাপতে পারেন কবি। বাস্তবকে অতিক্রম করলেও আবার বাস্তবে ফিরেও আসতে পারেন সহজে। প্রবৃত্তির অনুজ্ঞাও লালিত হয় প্রকৃতির ভারসাম্যে। অবৈধ প্রজাপতি, সবুজ বাষ্প, বকের অঙ্কন প্রণালী থেকে বিষাদের ম্লান মুখ সবই সামিল হয়। 
________________________________________
*হরিত প্রাণের কম্পন : লক্ষ্মীকান্ত মণ্ডল, প্রতিকথা, দাঁতন, পশ্চিম মেদিনীপুর, সূচক :৭২১৪ ২৬, মূল্য ২০ টাকা।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *