সহজ পাঠ – শুভাশিস দাস

আমরা অবলীলায় হারাচ্ছি পুরাতনী।অবহেলিত গল্পবুড়োরা এখন স্মৃতির পাতায়।ঠাকুরমার ঝুলি,পঞ্চতন্ত্র এখন অপশনাল সিলেবাস।ভিডিও গেম আর কার্টুনের দাপাদাপিতে কোলাহল নেই খেলার মাঠে।

সরকারি/বেসরকারি কর্মচারী অফিসার প্রভৃতি তকমা লাগানো আধুনিক বেশিরভাগই আধুনিকতার শিক্ষানবিশ অভিভাবকরা বেলাশেষের সন্ধ্যেয় বাড়ি ফিরে অধীর আগ্রহে বসে থাকা সন্তানের মিষ্টি হাসিতে নয়,নিশ্চিন্তে ডুব দেয় ফেসবুকের নোটিফিকেশন বা হোয়াটসআপ এর মিথ্যে স্মাইলিতে।তাই বলে ভাবনা ছোট নয়,স্বপ্ন আকাশছোঁয়া।

খোকা/মামনি যতই ছোটো হোক,বইতে ঠাসা নিজের থেকে বেশি ওজনের বোঝা বহনে অসমর্থ হলেও তাদের জীবন পর্যায়ের শৈশব নাকি কাটাতেই হবে ইংরাজি মাধ্যমে,শিক্ষার গোড়া আলগা না হওয়ার অযৌক্তিক যুক্তি।আসল কথা, অভিভাবকরা নিজেদের ব্যর্থ স্বপ্ন চরিতার্থ করার চেষ্টা চালানোর ফাঁকে সামাজিক মর্যাদা রক্ষার তাগিদে ইঁদুর দৌড়ে ছেড়ে দেয় আদরের বাবুসোনা/সোনামণিদের।

ফলস্বরূপ না বুঝেই গলাধঃকরণ শক্ত- ব্যাকরণ,নম্বরের খেয়োখেয়ি ছোটোদের নিত্যসঙ্গী।তাই বলে মাধ্যমকে দোষারোপ বা তুচ্ছ ভাবে দেখা কোনোটাই নয় শুধু চেষ্টা করছি অভিভাবকদের সিদ্ধান্তের সঠিকতা আর নির্ভুলতার মধ্যে পার্থক্য নিরূপণের।পরোক্ষভাবে আমাদের মতো ছাপোষা অভিভাবকদের অজান্তেই খুদেদের থেকে ‛কৌতূহল’ নামক বস্তুটাকে গোগ্রাসে গিলে চলেছে  “ই-বিশ্ব”র অদৃশ্য দৈত্যরা অনায়াস তথ্য প্রদানের মাধ্যমে।

আচ্ছা যদি ছোটোদের নিষ্পাপ মুখ যদি অনায়াস,অনর্গল ‛ই ঈ বসে খায় ক্ষীর খই’ বলে যায়, বলতে চায় ,যদি তার প্রাণ পায় ‛সহজ পাঠ’- এর পাতায় ।পরোয়া না করে -রাইমস র জুড়ি গাড়ির, যদি অনাবিল আনন্দ শৈশব চড়তে চায়,‛কুমোর পাড়ার গরুর গাড়িতে’-কি এমন ক্ষতি হয়, কি – ই বা এসে যায় আমাদের মতো গড্ডালিকা প্রবাহে ভাসমান অভিভাবকদের???

ফেসবুক মন্তব্য

Published by Story And Article

Word Finder

Leave a Reply

%d bloggers like this: