স্রোতস্বিনী ষোড়শী // মৌ সাহা

স্রোতস্বিনী ষোড়শী  //  মৌ সাহা
চৈত্রের দাবদাহে মৃত্তিকা অস্থিভঙ্গ।
সুউচ্চ পাহাড়ের চূড়া ভেদ করে লিকলিকে তরূ।
পাদদেশের সমভূমিতে সতেজ তৃণকান্ড।
মেঘের ন্যায় কালো উন্মুক্ত কেশ বিন্যাস।
স্রোতস্বিনী নদীর মত ষোড়শীর প্রেম।
নিরবে বয়ে যাওয়া জলধারা।
অনিমেষ আঁখির মাঝে অনল শিখা।
কাজল কালো রেখায় প্রণয়ের চিহ্নরেখা।
অপেক্ষার চিহ্ন আঁকা যেন ওষ্ঠদ্বয় মাঝে।
এঁকে বেকে চলা উন্মাদ তরুলতা,
নব পল্লবে সেজেছে অবনত বৃক্ষশাখা।
বক্ষদ্বার প্রকট,যেন অযুত বৎসর প্রতিক্ষার পর।
মৌন চিত্তে প্রাঁজল ভাবাবেশ।
নুপূরের নিক্কন প্রতিধ্বনি নিকুঞ্জ কাননে,
গভীর প্রণয়ে সহসা শিহরিত গাত্র,
যেন একগুচ্ছ শ্বেত-শুভ্র কাশ কুঁড়ি।
স্বেদ আর অশ্রুবিন্দু সম প্রকোষ্ঠে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *