গভীর অন্ধকারের নব্য ভিখারিনি ভেবে

আমি এক ধূপকাঠি // সত্যেন্দ্রনাথ পাইন যতক্ষণ বাঁধা ছিলাম প্যাকেজে জ্যাকেটে সুগন্ধি বেরোয়নি এতটুকু যা দরকার ছিল বেশ তো ছিলাম সকলের শ্রদ্ধা পেতাম আকস্মিকতায় আগুনে পুড়ে পুড়ে সুগন্ধি সুরভিতে মুগ্ধ হয় মন্দির মসজিদ গির্জা প্রণয়গাথা পরিবার সভামঞ্চ কী করে কীভাবে অকস্মাৎ সেই সুগন্ধি ঢুকে গেল সংসারের ভেতরে চর্চিত হোল পথে ঘাটে জানলা দরজা খুলে অন্দরে অন্তরেContinue reading “গভীর অন্ধকারের নব্য ভিখারিনি ভেবে”

অনেকটা পথ হাঁটার পর

 অস্থির চিত্ত // সীমা চক্রবর্তী   . কিসের নেশায় ছুটে বেড়াই কিযে চাই আমি     তীব্র এই অস্থিরতা যায়না কেন থামি। ভাঙছে আকাশ মাথার পরে ভূমিও যাচ্ছে ফেটে     লাভার মতো গলছে পা তবুও যাচ্ছি হেঁটে।    এরপরেও প্রবলতার হানছে বুকে ঢেউ হাতটি ধরে রুখবে আমায় এমন নেইতো কেউ।  থামাতে গেলেই বুকের ভিতর উষ্ণমেঘেContinue reading “অনেকটা পথ হাঁটার পর”

আঙুলের ছোঁয়ায় তোমাকে দেখা

ধ্বনি   //  সত্যেন্দ্রনাথ পাইন . ধ্বনি ওঠে ধনীর নামে সম্পর্ক জানান দেয় মানবিকতা জলের দামে যদি সে বেচে দেয় . কুমির থাকে জলের মধ্যে ডাঙ্গায় থাকে বাঘ প্রদীপের তেল পুড়ে গেলে সলতেতে লাগে দাগ। . মীর জাফর মীর কাসেম দুজনেই ছিলেন রাজকর্মচারী লোভী বিভিষণ আমরা কাকে বলতে পারি? . স্বপ্ন আছে স্বপ্ন ছিল থাকবেও চিরদিনContinue reading “আঙুলের ছোঁয়ায় তোমাকে দেখা”