অধরা জীবন – শম্পা ঘোষ

 

আরও একটা বিষণ্ণ হেমন্তের আঁচল খসে দিন শেষে গোধূলি বেলা পার হয়ে সন্ধ্যা নামল এসে ধীরে ধীরে ।
ক্রমশ অন্ধকার ঘনিয়ে আসছে চারধারে ।
ক্লান্ত পাখিরা ফিরছে তাদের বাসায় – কলকলানিতে এখনও মুখর তাদের বাসা ।
ধীরে ধীরে সব নিশ্চুপ ।

দিন শেষের বার্তা জানাল আগত রাত্রি ।

দিন বয়ে চলে দিনের মতো –
জীবনের প্রতিটি ক্ষণ আমাদের অজানা ।
আগামীতে কি ঘটবে তাও অনিশ্চিত ।

যে জীবনটা আমাদের সম্পূর্ণভাবে জানা নেই , সেই জীবনটা আমাদের কাছে বড়োই কৌতুহলের আর আগ্রহের উদ্রেক করে মনে !

আমাদের চারপাশের এই যে প্রকৃতির দান যা আমরা প্রতিনিয়ত ব্যবহার করে চলেছি – তার অপার্থিব সৌন্দর্য – আমাদের জীবনে এক আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু ।

আমাদের ভালোবাসার মুলস্থম্ভ জীবনে মানুষের সাহচর্যে এসে মানুষকে ভালোবাসো ।

জীবনের আবর্তে নিত্য আমরা দেওয়া – নেওয়া , চাওয়া – পাওয়া নিয়ে এগিয়ে চলেছি ।
আমাদের জীবনের সকাল ওই ভোরের নরম সূর্যের আলোয় জেগে ওঠে।

প্রকৃতি জেগে ওঠে, গাছে গাছে ফুল ফোটায় , পাখিরা তাদের কলকাকলিতে শুরু করে দিনের।মনের মধ্যে ছড়িয়ে দেয় নানা রকম রঙ – অস্তরাগের আলোয় যে বাহার , তা মনে এক প্রশান্তি সৃষ্টি করে ।

এত কিছু পেয়েও জীবনটা যে অনিশ্চিত ক্ষনের তা মনে এক অদ্ভুত ব্যাথার উদ্ভব করে।
যে সময়টা আজ পেরিয়ে চলে এসেছে জীবন  –
সেই সময় টা ভালোই হোক বা মন্দ
সেই সময়টা আরকি ফিরে পাবে এই জীবনটা !
যে কালটা পেছনে ফেলে রেখে এগিয়ে গেল জীবনটা তর তর করে – আর কোনোদিনই কোনোভাবেই এই জীবনটা পাবে না তার কোনো সন্ধান –
জীবনের যে সময় টা আগত সেটা ভালো হবে না মন্দ – তার উত্তর আমাদের অজানা ।
এত কিছু অজানা অধরা অনিশ্চিত নিয়েই তো জীবনটা এগিয়ে চলছে –
এর পরেও আমরা আকৃষ্ট হই এই আমাদেরই জীবনে
কি এক অমোঘ আকর্ষণে আমরা আকৃষ্ট হয়ে চলেছি সেই অধরাকে ধরতে !

পেরেছি কি আমরা তাকে মুঠোর মধ্যে বন্দী করতে !!

 

আপনার মতামত এর জন্য

Leave a Reply