আসতে পারতে –– সুমিত মোদক

story and article

তুমি তো জানতে আমার উঠান ফাঁকা আছে ;
তুমি তো আসতে পারতে সকালের মিঠে রোদ্দুর মেখে ,
কিংবা রাতের কুয়াশা মুড়ি দিয়ে ;
তুমি তো আসতে পারতে …

আমার মাটির উঠানে ধান শালিক এসে বসে ;
বসে ঘুঘু …
রাতচরা পাখিরাও ;
রেখে যায় একের পর এক ভালবাসার স্বরলিপি ;
আমি সেই স্বরলিপিতেই করি রাগিণী বিস্তার ;

তুমি যেদিন দেখবে আমার উঠান জুড়ে রঙবেরঙের প্রজাপতি মেলে দিয়েছে ডানা ,
সেদিন তুমি যেনো আমি চলে গেছি দূরে , বহু দূরে , কোনও এক অচিনপুরে ;
সেদিন তোমাকে আর আসতে হবে না ;

এখন আমার কঞ্চির বেড়ার কোল ঘেঁষে ফুটেছে
চেনা-জানা ফুল গুলো ;
কি সুন্দর সরল রেখায় ছড়িয়ে চলেছে তার ঘ্রাণ ;
অথচ , উঠান নিকানো হয়নি বহু কাল ;
তুলসী তলায় প্রদীপ জ্বলেনি ;
তুমি তো বলেছিলে তুলসী তলায় প্রদীপ জ্বালাবে ;
দেবে শঙ্খ ধ্বনি …
সেই তুমিই এলে না ;
আমার উঠান এখনও ফাঁকা পড়ে আছে ;

আমার উঠানে আমি মিঠে রোদ্দুর মাখি ;
কুয়াশার চাদর মুড়ি দিয়ে থাকি ;
থাকি তোমার পদচিহ্ন দেখার জন্য ;

একটু একটু করে শীত শেষ হয়ে আসছে ;
কিছু দিনের মধ্যে বসন্ত ঢুকে পড়বে আমার উঠানে ;
আমার বুকের মধ্যে ;
তখন হয়তো আমি ডুবে যাবো কোনও এক বসন্ত রাগে ;
একতারার সুরে সুরে কোনও এক বাউল আখড়ায় ;

তুমি তো জানো , আমার উঠান ফাঁকা থাকে ।।

 

story and article

আপনার মতামতের জন্য

Leave a Reply