Chhannachara

 

শিরোনাম – রথযাত্রা
কলমে – ছন্নছাড়া
তারিখ- 12/7/21

আজ রথযাত্রা, মেলায় যাওয়ার দিন। তাড়াতাড়ি করে সব কাজ গুছিয়ে নিয়েছেন কৃষ্ণপদবাবু। গিন্নিকেও তাড়া দিয়ে দুপুরের সব কাজ সেরে নিতে বলেছিলেন। দুপুরে খাওয়াদাওয়া সেরে দুজনে একটু বিছানায় গড়িয়ে নিলেন।

চারটে বাজতে না বাজতেই গিন্নিকে ঠেলে তুলে দিলেন কৃষ্ণপদ বাবু। “ওঠো, গুছিয়ে নাও, মেলায় যাওয়ার সময় হয়ে গেছে।” তারপর একটু আড়ামোডা দিয়ে উঠে নিজে সাজগোজ করে বাইরে এসে অপেক্ষা করতে লাগলেন গিন্নির জন্য।

কৃষ্ণপদ বাবু হাঁক পারলেন, “কই গো , হল তোমার? সন্ধ্যা হয়ে গেল তো? আর কখন যাব বলোতো? এরপর তো অল্পবয়স্ক ছেলে মেয়ে গুলোর ভিড় বেড়ে যাবে, তখন আমরা কিন্তু সেই ভিড় ঠেলে ঢুকতেই পারব না। ”

“হ্যাঁ, এই তো হয়ে গেছে, বড্ড তাড়া দাও তুমি, এই বয়সে এসে এত তাড়াতাড়ি সব গুছিয়ে উঠতে পারি না, তা কি আর তুমি বুঝবে? তোমাকে রথযাত্রার দিন ঠিক যেতেই হবে মেলাতে। আর আমাকে না নিয়ে ত তুমি যাবেই না।” বলতে বলতে ঘর থেকে বের হলেন রাধারাণী।

মুখখানা তার মিষ্টি হাসিতে ভরা। কৃষ্ণপদ বাবু তার গিন্নিকে এখনও সেই প্রথমদিনের মত ভালবাসেন। তাদের দেখে বোঝাই যায় না তাদের বিবাহিত জীবন বিয়াল্লিশ বছর পার করে ফেলেছে। আজও অটুট তাঁদের দাম্পত্য জীবন।

প্রতি বছরের মত এবছরেও দুজনে চলেছেন রথের মেলাতে। তারা দুজন প্রথমে মেলায় গিয়ে জগন্নাথ, বলরাম, শুভদ্রাকে প্রণাম করে রথের দড়ি ধরে টানবেন, সমস্ত দোকানে দোকানে ঘুরবেন, মেলায় পাপড় ভাজা, ঘুঘনি, জিলাপী খাবেন। কিছু গাছের চারা কিনবেন, তারপর কৃষ্ণপদবাবু গিন্নির জন্য একটা বেলুন কিনে নিয়ে তার রাধারাণীকে আবার বাড়ি ফিরে আসবেন।

বর্তমান নিউক্লিয়াস পরিবার, পারিবারিক ও দাম্পত্য কলহ, বিবাহ বিচ্ছেদের যুগে সন্তানহীন এই দুইজন ষাটোর্ধ বুড়োবুড়ি নিয়মিত প্রেমের জয়গান গেয়ে চলেছেন এভাবেই।
—–@@@@—–

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top