Dip Das Nishan

কবিতা ১
কবিতা নাম: বৃষ্টির কবিতা
লেখক: দীপ দাশ নিশান

 

ঝড়ো হাওয়া বইছে বেশ, ঈশাণ কোণে মেঘ,
আকাশের চোখ ছলছল আজ,দুয়ারে দাঁড়িয়ে দেখ।
বজ্রপাতের শব্দে জাগে ঘুমিয়ে ছিল যারা,
এক্ষুণি যে নেমে আসবে, ভীষণ বারিধারা।

কিশোরীরা দলবল নিয়ে, আম কুড়াতে যায়,
কেউবা আবার মনের সুখে, বৃষ্টির গান গায়।
পুকুর পাড়ে নতুন বৌটি, হাসে কুটকুট করে,
পাড়া পড়শীর মুখে তাই, গালমন্দ বেশ ঝরে।
গগনে দেখি- নেয় তো আর, বর্ণীল আলোকছটা,
হাত বাড়িয়ে বুঝলাম পরে, বৃষ্টি ফোঁটা ফোঁটা।

চুল খুলেছে নতুন বৌটি, পুকুর পাড়ে বসে,
আচমকা তার জোয়ান তাকে, জাপটে ধরে এসে।
গুড়ুম গুড়ুম শব্দ যেন পাঞ্চজন্য শাঁখ,
আদুল গায়ে ভিজে শিশু, মানে না মায়ের ডাক।
যুবা ভিজে, বুড়া ভিজে, ভিজে গাঁয়ের জেলে,
কত মৎস্য জলের মাঝে বিচিত্র খেলা খেলে।

পুকুরজলে নামেনি বৌ টা, বৃষ্টিতে হলো স্নান,
জোয়ানের সাথে প্রেমে মিশেছে, ভুলে কুল-মান।
কত ভালোবাসা, কত আনন্দ, আবেগের ছড়াছড়ি,
বাদলার জলে কেউবা করে, কাদায় গড়াগড়ি।

নীলখাম থেকে চিঠিটি নিয়ে, বানিয়ে নিলাম নৌকো,
অচীনদেশের কন্যা তুমি, অচীনপুরে থাকো।
এই বাদলে তোমায় দিলাম, নৌকোয় লিখে চিঠি,
লিখে দিলাম বাসনা যত, বেঁচে থাকুক স্মৃতি।
বাঁশের পাতা নুয়ে পরেছে, যেন কল্পলতা,
পাতার উপরে আখর দিলাম, বাদল দিনের কথা।

 

#শেষ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top