Hamidul Islam

হামিদুল ইসলাম

বোনাস

হামিদুল ইসলাম।

আমি সাদাসিধে মানুষ
সরল জীবন
বাঁকা পথে চলি না কোনোদিন
যদিও আমার কথার মাঝে মিশিয়ে দিই
কিছু গাঁজাখুরি
মিথ‍্যে কথন ।।

বাবার ছিলো দু বিঘে জমি
তবু ভাত জুটতো না সারা বছর
অনাহারে কতোদিন কেটে গেছে
তবু কাউকে বলতে পারি নি সেকথা ।।

পড়াশোনা নৈব নৈব চ
কোনোহালে প্রাইমারি পাশ
আজও আমি চালকল শ্রমিক
সামান‍্য ক’টা টাকায় চলে আমার সংসার ।।

আমি তখন সবে সতেরো
রোদ ঝলমল গুচ্ছ কবিতা
জীবন দেখেছি
বুঝি নি জীবন ।।

চাঞ্চল‍্য আমার বুকে
ছুটছি সারাদিন
পেরিয়ে যাচ্ছি সাত সমুদ্র তেরো নদী
তেপান্তরের মাঠ ।।

জীবন এখানে অন‍্যরকম
জীবন পথচলা
জীবন আকাশ ভরা জোসনা
দুপুরের রোদ
অশান্ত কথকতা ।।

একদিন বাড়িতে এসে দেখি
বাবা চলে গেছেন আমাদের ছেড়ে
দুঃখে পুড়ছি আমি
আমার দুচোখে শাওনের ধারা
হঠাৎ যেনো হয়ে গেলাম একা
হয়ে গেলাম অনাথ ।।

শরৎ ঝরছে হাওয়ায়
কাশফুলে দোলা
ণিজন্ত মনের গভীরে বেজে ওঠে বাঁশি
কার কণ্ঠ ভেসে আসে
আসে কথার লহরী হয়ে ।।

চেয়ে দেখি সোমা
আমার গ্রামেরই মেয়ে
আজও তিরতিরিয়ে বেড়ে উঠছে আমার সামনে
সুন্দর একটা মুখ
পূর্ণিমা চাঁদ ।।

হাসছে ও। ‘ লালন দা যাবে ? ‘
‘ কোথায় ? ‘
‘ মেলায়। ‘
‘ যাবো না। আমার পয়সা নেই। ‘
‘ আমার আছে। চলো। ‘

পায়ে পায়ে মেলা
হাতে হাত
কচি গোলাপ
কিছু বলতে চায় ও
বলতে পারে না ।।

দিন যায় রাত যায়
আরো কাছে আসে সোমা
একদিন ওর চঞ্চল মন হয়ে ওঠে আগুন
অব‍্যক্ত কথা বলে ফেলে নিঃসংকোচে
‘ লালন দা। আমি তোমাকে ভালোবাসি। ‘
‘ একথা তুমি বলতে পারলে ? ‘
‘ হ‍্যাঁ। পারলাম। ‘

বছর পেরোয় নি
আমাদের বিয়ে
ছাতনাতলায় সাতপাক দিতে দিতে
ও বলে, ‘ এসব বন্ধন মিথ‍্যে। ‘
‘ কেনো ? ‘
‘ ভালোবাসাই আসল বন্ধন। ‘

সে বন্ধন আমাদের ভাঙে নি
অটুট বন্ধনে বাঁধা আজও দুটি প্রাণ ।।

সোমা এখন অন‍্য রকম
অন‍্য মানুষ
ন’টি সন্তানের জননী
কঠোর পরিশ্রমী
মাঝে মাঝে নিজেকে হারিয়ে ফেলে ।।

এ বয়েসেও অনেক চাহিদা ওর
এটা দাও
সেটা দাও
না দিলে অনর্থক ঝগড়া
কান্নাকাটি ।।

চালকলের বোনাস দেড় হাজার টাকা
কবে হজম হয়ে গেছে
সোমা বলে, ‘ বোনাসের টাকাটা আমাকে দাও
পূজোয় একটা শাড়ি নেবো। ‘
‘ টাকাটা পাই। দেবো। ‘
‘ কবে পাবে ? ‘
‘ পাবো। ‘

পূজো আসে
ছেলেমেয়েদের টিউশনির পাওনা মেটাই
ছেঁড়া ফাটা জামার পরিবর্তে
ক’টা সস্তাদামে জামা কিনি ।।

সোমার নজরে পড়ে
‘ ওদের জন‍্যে জামা কাপড়
এবার বোনাসের টাকাটা ছাড়ো। ‘
‘ বোঝো না কতো ধানে কতো চাল ? ‘
‘ বুঝি। তোমার গণ্ডা গণ্ডা ছেলেমেয়ে
তুমি সামলাও। টাকাটা ছাড়ো। ‘
‘ পাই। ‘
‘ পাও নি ? ‘
‘ আজ পাবো। ‘

সোমা হাসে
তাহলে এবার পূজোয় নতুন শাড়িটা হবে ।।

গ্রাঃ+পোঃ=কুমারগঞ্জ। জেঃ=দক্ষিণ দিনাজপুর। মোঃ+হোঃ=8637316460।

https://bangla-sahitya.com/post/

Leave a Reply