Mehedi hasan rasel

  • গুধুলির বিকেল বেলা
  • কলমে:মেহেদী হাসান রাসেল

গুধুলি বেলার সূর্যটা যখন ডুবু ডুবু জোনাকি আমার হাতটা ধরে টেনে নিয়ে যাচ্ছে সামনের দিকে।আমরা এখন এক পার্কের ভেতর রাস্তার দুই পাশেই ফুলের গাছ।সন্ধা হয়ে এলো বলে ঘাসের উপর শিশির জমতে শুরু করেছে।গাধা ফুলের গা থেকে ঝরে পরছে শিশির বিন্দু।মৃদু বাতাস বইছে জোনাকির এলোমেলো চুলগুলো বাতাসে দুল দিচ্ছে।জোনাকির পরণে আজ নীল শাড়ি সাথে কালো ব্লাউজ।আমি জিন্স প্যান্ট আর নীল রঙের পাঞ্জাবীটা পরে আছি।আমি জোনাকির পাশাপাশি হাঁটছি।জোনাকির শরীর থেকে ভীষণ মনকাড়ানো সুভাস ভেসে আসছে।প্রয়াত হুমায়ন আহমেদ স্যারের মতে,অল্পবয়সী মেয়েদের শরীরের গন্ধ খুব খারাপ,এ গন্ধে মহাপুরুষেরাও পাগল হয়।আর আমি তো মহাপুরুষের ধরা ছোঁয়ার অনেক নিম্নে।তাই খুব দ্রুতই জোনাকির শরীরের গন্ধে পাগল প্রায়।তার উপর আবার হাতের উপর হাত রেখে হাঁটছি।হাঁটাহাটির মাঝে লক্ষ্যে করলাম জোনাকি মাঝে মাঝে খুঁশিতে আত্মহারা হয়ে বাঁকা চাঁদের ন্যায় ঠুটের কোণায় এক চিলতে হাসি দেখতে পাচ্ছি।আহ…..! আজ ভীষণ সুন্দর লাগছে জোনাকি কে।আজ অনায়াসে পাড়ি দেব কুয়াশা ঘেরা পুরো পথটা।হঠাৎ ঘুম ভেঙে গেল।আমি সজাগ পেলাম গড়ির দিকে তাকিয়ে দেখি প্রায় রাত তিনটে বেজে চলেছে।বাহিরে বৃষ্টি হচ্ছে।বৃষ্টির শব্দ জানালার কাঁচ ভেদ করে আমরা কানে এসে পৌচাচ্ছে …………!
আহ্ কি স্বপ্ন

সমাপ্ত

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top