sabita Kuiri

কবিতা- বাঁকীপুরের ভজন
কলমে সবিতা কুইরী

আমি ভজন বলছি গো,
পাটনার- বাঁকীপুরের অজ পাড়াগাঁর ছেলে।
মা চলে গেলেন বিনা চিকিৎসায়।
মনের প্রবল ইচ্ছায় বড় হতে চললাম খালিপায় কোলকাতায় ।
অর্থাভাব –
ভেবেছিলাম হব ইঞ্জিনিয়র ।
কিন্তু লাইন হল ডাক্তারের ।
মেল নার্স থেকে ট্যাক্সি চালক কি করিনি বলতো?
অর্থাভাব-
বলছ জিনিয়াস? হবে হয়তো ।
তবে ফেলের তকমাটাও ছিল ।
করেছি এম বি তে ফেল,আবার প্রেমেও ফেল।
জিনিয়াস ছিল আমার মন।
তোমরা তো একটুতেই হাতের শিরা কাটো।
শিশু পড়ে তবেই না হাঁটা শেখে?
সেই ভাবে আমিও ডাক্তার-ধ্বনন্তরি, পশ্চিমবঙ্গের রূপকার।
অদ্ভুত ভাবে আমার আসা যাওয়ার তারিখ একটাই- ১লা জুলাই ।
তোমরা আমাকে বল ডঃ বিধান চন্দ্র রায়।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top